ঐশীর পাশে দাঁড়ানোর শাস্তি! ‘স্কিল ইন্ডিয়া’র ভিডিও থেকে সরানো হল দীপিকাকে

ঐশীর পাশে দাঁড়ানোর শাস্তি! ‘স্কিল ইন্ডিয়া’র ভিডিও থেকে সরানো হল দীপিকাকে

জেএনইউয়ে গিয়ে ঐশী ঘোষের পাশে দাঁড়ানোয় আগেই গেরুয়া শিবিরের রোষের মুখে পড়েছিলেন দীপিকা পাড়ুকোন। এবার সরাসরি অভিনেত্রীর বিরুদ্ধে পদক্ষেপ নিল বিজেপি। তাঁকে সরিয়ে দেওয়া হল ‘স্কিল ইন্ডিয়া’র ভিডিও থেকে। এই ভিডিওতে দীপিকা অ্যাসিড আক্রান্তদের নিয়ে কথা বলেছিলেন। কেন্দ্রীয় দক্ষতা উন্নয়ন মন্ত্রকের তরফে এই ভিডিওটি বানানো হয়। এই ভিডিওতেই থাকার কথা ছিল দীপিকার।২০১৫ সালে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ‘স্কিল ইন্ডিয়া’ শুরু করেছিলেন। কেন্দ্রীয় দক্ষতা উন্নয়ন মন্ত্রকের এই যোজনায় একটি ভিডিও বানানো হয়। এর আগে অনুষ্কা শর্মা ও বরুণ ধাওয়ানের ছবি ‘সুই ধাগা: মেড ইন ইন্ডিয়া’র সময়ও ‘স্কিল ইন্ডিয়া’র ভিডিও তৈরি হয়েছিল। একইভাবে অ্যাসিড আক্রান্তদের নিয়ে ‘ছপাক’-এর জন্যও ‘স্কিল ইন্ডিয়া’র একটি ভিডিও তৈরির কথা ছিল। ‘সুই ধাগা’র মতো এক্ষেত্রেও ছবির প্রোমোশন হিসেবে ব্যবহৃত হত ভিডিওটি। কেন্দ্রীয় সরকারের তরফে অ্যাসিড আক্রান্তদের সঙ্গে দীপিকার একটি আলোচনাসভারও আয়োজন করেছিল তারা। কিন্তু অভিনেত্রী জেএনইউয়ে গিয়ে পড়ুয়াদের পাশে দাঁড়ানোর পরই আচমকা তাঁকে সরিয়ে দেওয়া হয় ‘স্কিল ইন্ডিয়া’র ভিডিও থেকে।

যদিও ঐশী ঘোষের পাশে দাঁড়ানোয় দীপিকাকে অনেক আগেই নিশানা করে গেরুয়া শিবির। জেএনইউয়ে গার্লস হোস্টেলে ঢুকে পড়ুয়াদের উপর হামলার প্রতিবাদে মঙ্গলবার বিশ্ববিদ্যালয় চত্বরে যান দীপিকা পাড়ুকোন। ‘ছপাক’-এর প্রোমোশনে দিল্লি গিয়েছিলেন তিনি। সেখান থেকেই প্রতিবাদ মঞ্চে যান। অদ্ভুতভাবে তার পর থেকেই অভিনেত্রীর বিরুদ্ধে সোশ্যাল মিডিয়ায় একের পর এক পোস্ট করতে শুরু করে বিজেপি নেতৃত্ব। দীপিকাকে বয়কট করার দাবিও তোলে বিজেপি নেতৃত্ব। যার মধ্যে ছিলেন বিজেপি নেতা তেজিন্দর পাল সিং বগ্গা। তারপর টুইটারে দীপিকাকে বয়কট করার হ্যাশট্যাগও ট্রেন্ডিং হয়ে যায়। বাতিল হয়ে যায় ‘ছপাক’-এর অনেক টিকিট। কিন্তু তারপরও মচকাননি দীপিকা। একের পর এক সাক্ষাৎকারে দেশের বর্তমান পরিস্থিতি নিয়ে ক্ষোভ উগরে দিয়েছেন। আর তার ফলশ্রুতি হিসেবে ‘স্কিল ইন্ডিয়া’র ভিডিও থেকে বাদ পড়তে হল তাঁকে ও তাঁর ছবি ‘ছপাক’কে।

CATEGORIES
Share This

COMMENTS

Wordpress (0)
Disqus (0 )