বন্দর নগরী চট্টগ্রামে সাড়ে ৫ লাখ শিশুকে ভিটামিন ‘এ’ ক্যাপসুল খাওয়ানো হবে

বন্দর নগরী চট্টগ্রামে সাড়ে ৫ লাখ শিশুকে ভিটামিন ‘এ’ ক্যাপসুল খাওয়ানো হবে

 চট্টগ্রাম মহানগরীতে প্রায় সাড়ে পাঁচ লাখ শিশুকে ভিটামিন ‘এ’ ক্যাপসুল খাওয়াবে চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন (চসিক)।
চসিকের প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা সেলিম আক্তার চৌধুরী  চসিক কার্যালয়ে  ভিটামিন ‘এ’ প্লাস ক্যাম্পেইন উদযাপন উপলক্ষে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ কথা জানান।
এ সময় কাউন্সিলর নাজমুল হক ডিউক, চসিকের স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. মোহাম্মদ আলী, চসিক জেনারেল হাসপাতালের কনসালটেন্ট ডা. সুশান্ত বড়–য়া প্রমূখ উপস্থিত ছিলেন।
সেলিম চৌধুরী বলেন, শনিবার জাতীয় ভিটামিন ‘এ’ প্লাস ক্যাম্পেইনের অংশ হিসেবে এ কর্মসূচি নেয়া হয়েছে। সারাদেশে ৬ মাস থেকে ৫ বছর বয়সী শিশুদের এই ভিটামিন খাওয়ানো হবে।
তিনি বলেন, চট্টগ্রাম নগরীর ৪১ টি ওয়ার্ডে সকাল ৮টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত স্থায়ী ও অস্থায়ী মোট ১ হাজার ২৮৮ টি ও ২০ টি ভ্রাম্যমাণ কেন্দ্রে ভিটামিন ‘এ’ ক্যাপসুল খাওয়ানো হবে। ক্যাম্পেইন চলাকালে শিশুকে ৬ মাস বয়স পর্যন্ত শুধু মায়ের দুধ খাওয়ানোর বিষয়ে পুষ্টিবার্তা প্রচার করা হবে।
তিনি বলেন, এই অভিযানের লক্ষ্য ভিটামিন ‘এ’ ক্যাপসুল খাওয়ানোর উচ্চহার বজায় রাখা, শিশুমৃত্যুর ঝুঁকি হ্্রাস ও এই ভিটামিনের অভাবে শিশুর অন্ধত্ব প্রতিরোধ এবং পুষ্টি বিষয়ক অন্যান্য কর্মসূচি সমন্বিতভাবে বাস্তবায়ন করা।
প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা বলেন, ১১ জানুয়ারি সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত ৬ থেকে ১১ মাস বয়সী প্রায় ৮০ হাজার শিশুকে ১টি করে নীল রঙের এবং ১২ মাস থেকে ৫৯ মাস বয়সী ৪ লক্ষ ৫০ হাজার শিশুকে ১টি করে লাল রঙের ভিটামিন ‘এ’ ক্যাপসুল খাওয়ানো হবে।
তিনি জানান, এছাড়াও ভ্রাম্যমাণ ২০টি বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ মোড়ে বাস, রেল, লঞ্চ স্টেশন, নগরের প্রবেশমুখ সিটি গেট, কর্ণফুলী শাহ আমানত সেতু, কালুরঘাট সেতু, অক্সিজেন মোড়ে ভাসমান শিশুদের ভিটামিন ‘এ’ ক্যাপসুল খাওয়ানো হবে।
তিনি জানান, গত বছরের ২২ জুন জাতীয় ভিটামিন ‘এ’ প্লাস ক্যাম্পেইনে চসিক থেকে ৬ থেকে ১১ মাস বয়সী ৭৮ হাজার ৫৯৯ এবং ১২-৫৯ মাস বয়সী ৪ লাখ ৪৩ হাজার ৫৮২ শিশু ভিটামিন ‘এ’ ক্যাপসুল পায়, যা লক্ষ্যমাত্রার ৯৯ শতাংশ।

CATEGORIES
Share This

COMMENTS

Wordpress (0)
Disqus (0 )