সরকারি খাদ্যগুদামে ধান ক্রয়ে কৃষকদের হয়রানি করা যাবে না : খাদ্যমন্ত্রী

সরকারি খাদ্যগুদামে ধান ক্রয়ে কৃষকদের হয়রানি করা যাবে না : খাদ্যমন্ত্রী

 খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার বলেছেন, সরকারি খাদ্যগুদামে ধান ক্রয়ের ক্ষেত্রে কৃষকদের হয়রানি করা যাবে না।
তিনি শনিবার সকালে নওগাঁর সাপাহারে বিনামূল্যে প্রান্তিক কৃষকের মাঝে বীজ ও সার বিতরণ ও প্রতিবন্ধী ভাতা কার্যক্রমের উদ্বোধনকালে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।
সাপাহার উপজেলা চত্ত্বরে আয়োজিত এ অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা কল্যাণ চৌধুরী। বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা চেয়ারম্যান শাহজাহান হোসেন প্রমুখ।
খাদ্যমন্ত্রী বলেন, ধান ক্রয়ের ক্ষেত্রে কোন ওসিএলএসডিরা কৃষকদের যদি কোন রকমের হয়রানি করে তা কোনভাবেই সহ্য করা হবে না। তাদের বিরুদ্ধে কঠোর প্রশাসনিক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।
তিনি বলেন, আমরা এ নিয়ে ঢাকায় সকল ওসিএলএসডি, ডিসি ফুড, আরসি ফুডকে নিয়ে কিভাবে কাজ করবো সেই নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। কারন সরকার দুর্নীতির বিরুদ্ধে কঠোর অবস্থানে আছে। তাই সরকারি সকল কর্মকর্তাদের দুর্নীতিমুক্ত থাকতে হবে।
উপজেলা কৃষি অফিসের আয়োজনে প্রণোদনা কর্মসূচির আওতায় ২০১৯-২০২০ অর্থ বছরে ১ হাজার ৪ শ’ ৬০ জন কৃষকের মাঝে সরিষা, ভুট্টা, পিয়াজ, মুগডালের জন্য নির্ধারিত প্রান্তিক চাষীদের মধ্যে বীজ ও সার বিতরণ করা হয়।
অপরদিকে একই অনুষ্ঠানে খাদ্যমন্ত্রী উপজেলা প্রশাসন ও সমাজসেবা অফিসের আয়োজনে ৯৭জন প্রতিবন্ধীদের মাঝে ৮ লাখ ৯২ হাজার ৮’ শ টাকা, ১ শ’ ৯০ জন দলিত ও হরিজনের মাঝে বিশেষ ভাতা ১১ লাখ ৪০ হাজার টাকা এবং সেচ্ছাসেবী সমাজকল্যাণ সংস্থা সমূহকে এককালীন অনুদান হিসেবে ১৯ হাজার ৫ শ’ করে ৬টি সংস্থাকে মোট ১ লাখ ১৭ হাজার টাকা বিতরণ করেন।
পরে বিকেলে মন্ত্রী সাপাহার উপজেলার আইহাই ও পাতাড়ী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের পৃখক দু’টি সম্মেলনে প্রধান অতিথি হিসেবে যোগ দেন।
এসময় উপজেলা প্রশাসনের বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তা, ইউপি চেয়ারম্যানবৃন্দ, গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ ও প্রনোদনাপ্রাপ্ত কৃষকরা উপস্থিত ছিলেন।

CATEGORIES
Share This

COMMENTS

Wordpress (0)
Disqus (1 )